দুদকে নিয়োগের প্রস্তুতি (দুদক) দুর্নীতি দমন কমিশন নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন বিশ্লেষণ

দুদকে নিয়োগের প্রস্তুতি (দুদক) দুর্নীতি দমন কমিশন নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন বিশ্লেষণ


anti corruption job preparation
anti corruption job preparation


২০১৩ সালের এপ্রিলের ১২ তারিখ এবং ২০১৫ সালের নভেম্বরের ২৯ তারিখ, এই দুবার দুদকের এডি পদের পরীক্ষা হয়।। প্রিলি প্রশ্ন পদ্ধতিতে দেখা যায় মোট ১০০মার্কের এক্সামে বাংলা, ইংরেজী,গণিত,সাঃজ্ঞান ও কম্পিউটার থেকে ২০মার্ক করে প্রশ্ন হয়।।

এক্সাম টেকার আইবিএ থাকে দুবারই।।গণিত ইংলিশ ব্যাংক স্ট্যান্ডার্ড। তাই প্রিপারেশন নিতে হবে কড়া।।

সাব্জেক্ট ভিত্তিক সাজেশনঃ
#আইবিএ বেজড সকল এক্সামের একটা বই আছে প্রফেসরস এর ওইটা আগে কিনতে হবে আপনাকে।প্রশ্ন এনালাইজ করার জন্যে
তাছাড়া

১)বাংলাঃ বোর্ড বই থেকে গ্রামার,সাথে অগ্রদূত থেকে প্রশ্ন সমাধান।সাহিত্য থেকে কম প্রশ্ন আসবে তাই এটায় কম সময় দিয়ে গ্রামারে জোর বেশি দেবেন।।

২)ইংলিশঃ ভোকাবুলারি ভাল নাহলে কেবল গ্রামার দিয়ে ভাল করার কোন সুযোগ নাই।।ব্যাংক ভোকাবুলারির জন্যে আরিফুর রহমানের ব্যাংক ভোকাবুলারি শেষ করেন।আর প্রফেসরস কিংবা ৪১ তম বিসিএস এর যেকোন একটা ইংলিশ বই থেকে ভোকাবুলারি, সিনোনিম, এন্টোনিম, ফ্রেইজ ইডিওমস প্রশ্ন সমাধান সহ শেষ করলে ইংলিশ ৬০% প্রিপারেশন হয়ে যাবে আশা করি।। 
তারপর গ্রামারের জন্যে পারলে জাকির হুসাইন আর প্রফেসরস এর ৪১তম বিসিএস বই থেকে বেসিক সহ প্রাক্টিস করুন,

বিশেষ করে পার্টস অফ স্পিচ(প্রিপোজিশন, ভার্ব,এডভার্ব বেশি গুরুত্বপূর্ণ), কন্ডিশনাল পড়তে হবে ভাল করে

আর কারেকশন পড়ে যাবেন বেশি বেশি কোয়েশ্চন প্র্যাক্টিস এর বিকল্প নেই।।ট্রান্সফরমেশন সাধারণত কম আসে।।

৩)গণিতঃ গণিতের জন্যে খায়রুল ব্যাংক ম্যাথের সাথে বিসিএস এর সিলেবাস মিলিয়ে পড়ুন।দুইটাই কভার করে যান যতদূর সম্ভব।। 
পাটিগণিত বেশি করবেন।।পাটিগণিত থেকেই বেশি দেয় আইবিএ।

৪)জিকেঃ বাংলাদেশ ও আন্তর্জাতিক পার্ট খুব গুরুত্বপূর্ণ টপিক গুলো অল্প সময় নিয়ে পড়ে যান।তারপরই প্রশ্ন প্র
্যাক্টিস করতে থাকুন।।প্র্যাক্টিসের বিকল্প কিছুনাই।।সাম্প্রতিক থেকে বেশি প্রশ্ন দেয় সাধারণত।।৩-৪টা কারেন্ট এফেয়ার্স অবশ্যই পড়তে হবে।।অক্টোবর,নভেম্বর, ডিসেম্বর,জানুয়ারি এই চারমাস পড়ে গেলেই হবে আশা করি
সম্ভব হলে নতুন কোন ডাইজেস্টের সাম্প্রতিক অংশ পড়ে গেলে বেশি উপকার পাবেন।।

৫)কম্পিউটার ঃ যেহেতু ২০ মার্ক আসছে আগে, এবারও তেমন হতে পারে।।ইজি কম্পিউটার এর সাথে আন্সারীর কম্পিউটার অথবা ব্যাংকের বিগত বছরের কম্পিউটারের প্রশ্ন সমাধান করে যেতে পারলে বেস্ট।।

ইংরেজী বা বাংলা পত্রিকা পড়ার অভ্যাস বা থাকলে এখন আর এটা গড়ে তোলার চেষ্টা ভুলেও করবেন না।তাহলে ধরা।।হাতে সময় কম খুব বুঝে শুনে সময় ব্যয় করতে হবে।। পরীক্ষার হওয়ার সম্ভাব্য তারিখ জানুয়ারির ৩য় বা ৪র্থ সপ্তাহ।। দুদকের এই বছরের সকল সার্কুলার এবং এক্সাম ডেট বিশ্লেষণ করলে দেখা যায় তারা সার্কুলার দেয়ার দুই মাসের মধ্যেই এক্সাম নিয়ে নেয়।।🙂 Work hard but act smart🙂


#দুদক_নিয়ে_আদ্যপান্ত­(২)
কাল একটা পোস্ট দিয়েছিলাম৷ দুদকের প্রস্তুতি নিয়ে৷ কিন্তু অনেকেই আমার পোস্টে কমেন্ট করেছেন যে এবার নাকি ম্যাথ থাকবে না৷ তাই আবার এই পোস্ট দিচ্ছি৷ এটি সম্পূর্ণ আমার নিজের অভিমত৷ ব্যক্তিগত ভাবে না নেয়ার জন্য অনুরোধ জানানো গেল৷
আমি আইবিএর অধীনে এখন পর্যন্ত কম করে হলেও ৫-৬ টি চাকরির পরীক্ষা দিয়েছি৷ আর বেশির ভাগ ছিল এডির পরীক্ষা৷ লাস্ট দিয়েছিলাম CGDF এর অডিটরের এক্সাম৷ এর আগে BREB এর এডি দিয়েছি৷ বাকি গুলো না হয় বাদ দিলাম৷
প্রতিটা পরীক্ষায় দেখেছি আইবিএ ম্যাথ দেবেই৷ এমনকি BREB এর এডিতেও ম্যাথ দিয়েছিল যা অনেক কঠিন ছিল৷ ম্যাথ আর ইংরেজি হল আইবিএর ট্রাম কার্ড৷ যারা এই দুটোতে ভাল করবেন, তারাই পরের রাউন্ডে যেতে পারবেন৷
এখন ডিসিশন আপনাদের৷ ম্যাথ করে যাবেন কিনা যাবেন না৷ এক্সাম এর টেন্ডার পাওয়ার পর আইবিএ কেমন প্রশ্ন করবে সেটা আমাদের মত পরীক্ষার্থীদের জিজ্ঞেস করবেনা৷ তাই এখনো সময় থাকতে প্রিপারেশন নিতে ক্ষতি কি? পরীক্ষার হলে আপনি যদি বলেন, সার্কুলারে লেখা ছিল তাই ম্যাথ করি নি৷ ম্যাথ দিল কেন? তখন আপনার কথা কেউ শুনবে না৷ তাই যা ক্ষতি হবার আপনার হবে৷
আপনাদের সুবিধার জন্য মান বন্টন দিয়ে দিলাম৷

দুদকে নিয়োগের প্রস্তুতি প্রিলিমিনারীপ্রস্তু­তি

বিষয়ভিত্তিক মানবন্টন
১. বাংলা- ২০ টি- ২০ নম্বর
২. ইংরেজি- ২০ টি- ২০ নম্বর
৩. গণিত- ২০ টি- ২০ নম্বর
৪. সাধারণ জ্ঞান- ২০ টি- ২০ নম্বর
৫. সাধারণ বিজ্ঞান- ১৫ টি- ১৫ নম্বর
৬. কম্পিউটার ও তথ্য প্রযুক্তি- ৫ টি- ৫ নম্বর
(বিশেষ দ্রষ্টব্য: ২০১৩ সালে ১০০ টি প্রিলিতে করা হয়েছে ১০০ নম্বর বরাদ্দ ছিল, ২০১৫ সালে ৮০ টি প্রশ্ন করা হয়েছে, ১০০ নম্বর, প্রতি প্রশ্নে বরাদ্দ ছিল ১.২৫ নম্বর)
পরিশেষে বলতে চাই, ম্যাথ ছাড়া এখনো কোন চাকরির পরীক্ষা হয়েছে বলে আমার জানা নেই৷ তাই ম্যাথকে অবহেলা করবেন না৷ পরীক্ষার হলে ম্যাথ না করে এসে চাকরির আশা করা আর বিসিএস ক্যাডারের গফের পেছনে ঘুরাঘুরি করা একই কথা৷ 😎😎
ভাল থাকবেন৷
বড়দিনের শুভেচ্ছা নিবেন৷


Related tag:
দুদক নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন,দুদক নিয়োগ পরীক্ষা ২০১৯,দুদক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০১৯,দুদক নিয়োগ প্রশ্ন,দুদক লিখিত পরীক্ষার প্রশ্ন,দুদক প্রশ্ন,দুদক নিয়োগ পরীক্ষা ২০১৭,দুদকের নিয়োগ
দুদকে নিয়োগের প্রস্তুতি (দুদক) দুর্নীতি দমন কমিশন নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন বিশ্লেষণ দুদকে নিয়োগের প্রস্তুতি (দুদক) দুর্নীতি দমন কমিশন নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন বিশ্লেষণ Reviewed by Admin on December 27, 2019 Rating: 5

No comments:

Powered by Blogger.